1. jagocomilla24@gmail.com : jago comilla :
  2. weekybibarton@gmail.com : Amit Mazumder : Amit Mazumder
  3. sufian3500@gmaill.com : sufian Rasel : sufian Rasel
  4. sujhon2011@gmail.com : sujhon :
বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১০:৫৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজঃ
নিরাপত্তা বিবেচনায় সব স্কুল-কলেজ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা টাইব্রেকারে ব্রাজিলকে বিদায় করে সেমিতে উরুগুয়ে বাজপাখি মার্টিনেজ নৈপুণ্যে সেমিতে আর্জেন্টিনা কুমিল্লায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে এনটিভির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন চাঁদপুর হাজীগঞ্জে সেনাবাহিনীর ফ্রি চিকিৎসা সেবা ও ওষুধ পেলেন প্রায় দেড় হাজার মানুষ শিশু-কিশোরদের অবক্ষয় রোধে বিদ্যালয়ে বিদ্যালয়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান কুমিল্লায় স্ত্রীকে হত্যা ১০ বছর পর স্বামীর ফাঁসির আদেশ! ১ হাজার ৪৪ কোটি ৫০ লাখ  টাকার বাজেট ঘোষণা করলেন কুমিল্লা সিটি মেয়র ডাঃ তাহসীন বাহার সূচনা আজ থেকে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু শেষটা রাঙিয়ে অবসরের ঘোষণা কোহলির

ঘড়ি ধরে খাবার খেলেই দূরে থাকবে এসব অসুখ

  • প্রকাশ কালঃ বুধবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২০
  • ৬৮২

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্ক:

আমরা বাঙালিরা নিয়ম করে তিনবেলা খাবার খাই। এর মাঝে আরো আছে বিভিন্ন নাস্তা কিংবা হালকা খাবার। তবে ঘড়ি ধরে একই সময় খাওয়ার অভ্যাস আছে তো? না হলে, মারাত্মক বিপদে পড়তে পারেন।
প্রতিদিন একসময়ে খাবার খাওয়ার গুরুত্ব প্রাচীন আমল দেয়া হচ্ছে। আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞানও একই কথা বলছে। তাদের মতে,লাগামহীন ওজন বাড়ার মূল কারণ কিন্তু এটাই। সঠিক সময়ে খাবার না খাওয়া। এই অভ্যাস আপনাকে হৃদরোগের দিকে এক ধাপ এগিয়ে দিচ্ছে।

প্রাচীন চীনা চিকিৎসা পদ্ধতি ও আয়ুর্বেদে সবচেয়ে বেশি জোর দেয়া হয়েছে রুটিনে। স্পষ্টই বলা হয়েছে রুটিনে বাধা জীবনই সুস্থ জীবন। একটি ছন্দ বজায় রাখার কথা বারববার বলা হয়েছে সেখানে। সুস্থ থাকার মূল দাওয়াই হল, খাওয়া, ঘুম, স্বাস্থ্যচর্চা জীবনের সব কিছুতেই একটা রুটিন রাখা।

তবে জেনে নিতে হবে আপনার কি ধরনের খাবার খাওয়া দরকার। ফরাসি নিউট্রেশানিস্ট জ্যা রবার্ট রাপিন এই ডায়েটের বিষয়ে প্রথম সরব হন। এই ডায়েটটি তৈরিই হয়েছে চিনা এবং আয়ুর্বেদিক মতামতগুলো সংক্রান্ত বোঝাপড়াকে কেন্দ্র করে।

রোজের প্রতিটি খাবার ঘড়ি ধরে খেলে যে উপকারগুলো পাবেন-

একই সময়ে খাবার খেলে আপনার বিপাক ঠিক থাকবে।

শরীরের হরমোনের তারতম্য সঠিকভাবে ক্ষরিত হবে। মন-শরীর দুইই তরতাজা থাকবে।

ওজন কমাতে এবং ক্যান্সারের মতো রোগগুলোও দূরে থাকবে।

শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

গ্যাস্ট্রিক এবং কার্ডিওভাসকুলারের সমস্যা থেকে রেহাই পাওয়া যায়।

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুনঃ

© All rights reserved © 2024 Jago Comilla
Theme Customized By BreakingNews