Jago Comilla

কুমিল্লার খবর সবার আগে

খেলার সংবাদ

স্টেডিয়ামেই অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ম্যারাডোনা

অনলাইন ডেস্ক:
মাঠে আর্জেন্টিনার খেলা অথচ গ্যালারিতে ফুটবলের রাজপুত্র ডিয়েগো ম্যারাডোনা থাকবে না তা কি করে হয়! খেলোয়ারি জীবন শেষে নিজের বুট জোড়া তুলে রেখেও ঠিক সেই আগের মতই রয়ে গেছেন তিনি। আজও আর্জেন্টিনার ম্যাচ মানেই ম্যারাডোনার আবেগের নিখাদ ও চূড়ান্ত বহিঃপ্রকাশ। মঙ্গলবার (২৬ জুন) সেন্ট পিটার্সবার্গে আর্জেন্টিনার বাঁচামরার ম্যাচে ম্যারাডোনাকেও ঠিক সেভাবেই দেখা গেছে। তবে এতটা বোধ হয় কেউ আশা করেনি। কারণ ম্যাচ শেষে এই কিংবদন্তিকে যে যেতে হয়েছে হাসপাতালে।

নাইজেরিয়ার বিপক্ষে স্নায়ুক্ষয়ী জয়ের মাধ্যমে রাশিয়া বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠেছে আর্জেন্টিনা। এ ম্যাচটিতে নাইজেরিয়াকে ২-১ গোলে হারায় আর্জেন্টিনা। এদিন মাঠে বসেই আর্জেন্টিনা-নাইজেরিয়া ম্যাচটি উপভোগ করেন আর্জেন্টিনার ফুটবল কিংবদন্তি দিয়েগো ম্যারাডোনা। মাঠে তাকে উল্লাস করতেও দেখা যায়।

কিন্তু এদিন ম্যাচ শেষে তিনি স্টেডিয়ামেই অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে সেখানেই তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। ম্যারাডোনার অসুস্থ হওয়ার বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, অসুস্থ ম্যারাডোনাকে কয়েকজন চিকিৎসার জন্য ধরে নিয়ে যাচ্ছেন।

আর্জেন্টিনার সাংবাদিক ও ম্যারাডোনার বন্ধু মার্টেন অ্যারেভালো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানিয়েছেন, লো ব্লাড প্রেসারের কারণে ম্যারাডোনার এমনটি হয়েছে। চিকিৎসা দেয়ার পর ম্যারাডোনা ভালো আছেন।

আজ ম্যাচের ১৪তম মিনিটে লিওনেল মেসির গোলে এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা। ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় লা আলবিসেলেস্তেরা। বিরতির পর ৫১তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে এগিয়ে যায় নাইজেরিয়া।

আজ হারলে কিংবা ড্র করলে আর্জেন্টিনা বাদ পড়ে যেত। এক পর্যায়ে মনে হচ্ছিল ম্যাচটি হয়তো ড্র হতে যাচ্ছে। কিন্তু ৮৬তম মনিটে মার্কো রোহো আর্জেন্টিনার জয়সূচক গোলটি করেন। এরপরেই আনন্দ আর উল্লাস।

তাইতো বিবিসির উপস্থাপক ও ইংল্যান্ডের সাবেক স্ট্রাইকার গ্যারি লিনেকার বলেছেন, ‘ম্যারাডোনার এই উদযাপন সংবাদমাধ্যমে আলোচিত হবে’ এবং সেটাই ঘটেছে। তবে তার হাসপাতালে যাওয়ার খবরটা আর্জেন্টিনা–সমর্থকদের যে দুশ্চিন্তায় ফেলেছে, তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *