শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:০৬ অপরাহ্ন

অনলাইন ডেস্ক:
জাতিগত বৈরিতার বিতর্কে জড়িয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপে দুই ফুটবলারকে নিষিদ্ধ করেছে ফিফার তদন্তকারীদল। তাদের পাশাপাশি আপত্তিকর উদযাপনের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন দুইজন ফুটবল সমর্থকও। কি করেছেন তারা?

গত ২২ জুন সার্বিয়া বনাম সুইজারল্যান্ডের ম্যাচ ছিল কালিনিনগ্রাদে। সুইসরা ২-১ গোলে সার্বিয়ানদের পরাজিত করে। আর সেই ম্যাচে গোল করেই দুই সুইস ফুটবলার ‘ঈগল’ চিহ্ন দেখান।

সার্বিয়ার অভিযোগ, অযথা দর্শকদের ভাবাবেগে আঘাত করেছেন দুই আলবেনীয় বংশোদ্ভূত সুইস ফুটবলার। এছাড়াও সেই ম্যাচেই সুইস ফুটবলার সাকিরি যে বুট পরেছিলেন তার রং সুইজারল্যান্ড ও কসোভোর পতাকায় ছিল। ম্যাচের পরেই সার্বিয়া ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন ফিফার কাছে অভিযোগ দায়ের করে।

সেই অভিযোগের সূত্রে তদন্তে নামে ফিফা কর্তৃপক্ষ। তদন্তে তারা প্রমাণ পায় ইচ্ছাকৃতভাবেই ওইদিন ম্যাচ শেষে দুই ফুটবলার জাকা ও শাকিরি বিজয় উল্লাস দেখাতে গিয়ে আলবেনিয়ার জাতীয় পতাকায় থাকা ‘ঈগলের চিহ্নকে’ হাতের অঙ্গভঙ্গিতে প্রকাশ করেছেন। যার ফলে দুই সুইস ফুটবলার জাকা-শাকিরি দুই ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন।

অন্যদিকে ইংল্যান্ড ও তিউনিসিয়ার ম্যাচ চলাকালীন ফুটবল দর্শক মাইকেল হারবার্ট ও তার আরও দু’জন সঙ্গী নিয়ে ‘নাৎসি স্যালুট’ দেন ও সেমেটিক বিরোধী গান গেয়েছিলেন। আর সেই অপরাধকে কেন্দ্র করে হারবার্টকে পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে ফিফা।

অপরদিকে পল জনসন নামে এক ব্যক্তি মস্কোর কাছে এক ট্রেনে ‘নাৎসি স্যালুট’ দেন। যার কারণে তাকে তিন বছরের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। নিষিদ্ধ থাকাকালীন স্টেডিয়ামে প্রবেশ করে কোন ফুটবল ম্যাচ তারা দেখতে পারবেন না।

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: