বুধবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২৩, ০৭:৫৩ পূর্বাহ্ন

(জাগো কুমিল্লা.কম)
বিএনপি মনোনীত দেবীদ্বার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ রুহুল আমিনকে ঢাকা আশুলিয়া এলাকায় ৪টি জাল দলিল সম্পাদনে ও প্রতারনার মাধ্যমে সাড়ে ৪বিঘা সম্পত্তি আত্মসাতের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার করেছে সি.আই.ডি পুলিশ। ঢাকা সি.আই.ডি অর্গানাইজড ক্রাইমের সিরিয়াস শাখা’র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ.এস.পি) জহিরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বুধবার সকালে ঢাকা সিআইডি অর্গানাইজড ক্রাইম’র সিরিয়াস স্কোয়াড শাখার একটি টিম বিশেষ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্লাহ বিপিএম’র নেতৃত্বে ঢাকা পল্টন থানা এলাকার শান্তিনগর নিজ বাড়ি নং-১৬৫, প্লাট নং-১/১৯ থেকে (দেবীদ্বার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ রুহুল আমিন) তাকে গ্রেফতার করেন। মোঃ রুহুল আমিন কুমিল্লার দেবীদ্বার উপজেলার পদুয়া গ্রামের মৃত: মোহাম্মদ আলী মাষ্টার’র পুত্র এবং দেবীদ্বার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান।

জানা যায়, চলতি বছরের গত ২৮ এপ্রিল আশুলিয়া এলাকার বাসিন্দা আব্দুল হাকিম আশুলিয়া এ্যসিল্যান্ড অফিস থেকে নোটিশ প্রাপ্তির মাধ্যমে জানতে পারেন যে, জনৈক রুহুল আমিন আশুলিয়া পূর্বনরসিংহ পুর মৌজার ১৩৭.৫০ শতাংশ জমি (সাড়ে ৪ বিঘা) নামজারি/ জমা খারিজের জন্য আবেদন করেছেন। জমির মালিক পরবর্তীতে এ্যসিল্যান্ড অফিসে যোগাযোগ করলে জানতে পারেন যে, জনৈক রুহুল আমিন ৪(চার)টি জাল দলিল তৈরী করে উক্ত সাড়ে ৪বিঘা সম্পত্তির মালিকানা দাবি করছেন। বিষয়টি অবগত হয়ে তিনি গত ২৫/০৫/২০১৮ ইং তারিখে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলাটির তদন্তভার সিআইডি গ্রহন করার পর সিআইডি অর্গানাইজড ক্রাইমের সিরিয়াস স্কোয়াড শাখার একটি টিম বিশেষ পুলিশ সুপার জনাব মোহাম্মদ উল্লাহ, বিপিএম’র সার্বিক তত্ত্বাবধানে গতকাল (১৮/০৭/২০১৮ ইং তারিখ) মূল আসামী রুহুল আমিনকে ঢাকা শান্তিনগরস্থ নিজ বাসা থেকে গ্রেফতার করেন।

মোঃ আব্দুল হাকিম আশুলিয়া থানাধীন মৌজা “পূর্ব নরসিংহপুর” স্থিত সি,এস ও এস, এ ৯২ দাগ আর. এস ২৭২ দাগ সিটি জরীপে ৯১৫ ও ৯১৯ দাগে ১৩৭.৫০ শতাংশ জমির (যার আনুমানিক মূল্য ১১লক্ষ টাকা) প্রকৃত মালিক বলে দাবী করেন।

সিআইডি পুলিশ জানায়, সম্প্রতি আশুলিয়া পূর্বনরসিংহ মৌজার ১৩৭.৫০ শতাংশ জমি (সাড়ে ৪ বিঘা) নকল দাতা সাঝিয়ে ৪ টি দলিলের মাধ্যমে সাড়ে ৪ বিঘা জমির দলিল নিজ নামে সম্পাদন করেন। যে জমি সরকারী সাব-রেজিষ্ট্রি বিভাগের মূল্য তালিকানুযায়ী প্রায় ১১ কোটি টাকা এবং স্থানীয়দের ধারনা ওই জমির বর্তমান বাজার মূল্য শত কোটি টাকা হবে।

ওই ঘটনায় ঢাকা রামপুরার মহানগর হাউজিং সোসাইটির (রোড নং- ৩, ব্লক-ডি, বাসা নং- ৫৮) মৃত হাজী আব্দুল গনি’র পুত্র মোঃ আব্দুল হাকিম বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় প্রতারনা ও জালিয়াতির অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ৮২/৪৩৭, তারিখ- ২৫ মে ২০১৮ইং, ধারা- ৪৬৭, ৪৬৮, ৪২৯. ১০৯, ৫০৬, প্যানাল কোড ১৮৬০। মামটি সিআইডি পুলিশ গ্রহনপূর্বক তদন্তে নামেন। তদন্তের এক পর্যায়ে তথ্যাদি সত্য প্রমানীত হলে বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় মামলায় এজহারভূক্ত অন্যতম আসামী মোঃ রুহুল আমিন (দেবীদ্বার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান)কে গ্রেফতার করে সিআইড পুলিশ। পরে মামলাটির তদন্তভার আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) সাইফুল ইসলাম’র উপর ন্যস্ত করা হয়।

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: