শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:৪৮ অপরাহ্ন

অনলাইন ডেস্ক:
সম্প্রতি ধরে নিয়ে টাকা দাবি, ক্রসফায়ার ও বিভিন্ন মামলায় জড়িয়ে দেওয়ার হুমকির অভিযোগ এসেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। এছাড়াও প্রায় প্রতিনিয়তই পুলিশের হাতে হয়রানির শিকার হওয়ার অভিযোগও করেছেন অনেকে। কিন্তু মানুষ কোথায় অভিযোগ করবেন, সেটা জানা নেই। পুলিশের হাতে হয়রানির শিকার হলে অভিযোগ করার জন্য কয়েকটি মাধ্যম রয়েছে। আছে হটলাইনও। তবে হটলাইনগুলো জরুরি সেবার ক্ষেত্রেই ব্যবহার করা সমীচীন বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

এ ব্যাপারে পুলিশ সদর দফতর সূত্র জানায়, পুলিশের হয়রানির বিরুদ্ধে অভিযোগ করার জন্য রয়েছে কয়েকটি মাধ্যম। তবে এজন্য আলাদাভাবে ‘আইজিপি কমপ্লেইন সেল’ নামে একটি সেল রয়েছে পুলিশ সদর দফতরে। পুলিশ সদস্যদের যেকোনও অপেশাদার ও অনৈতিক কর্মকাণ্ড সম্পর্কে সরাসরি অভিযোগ করার জন্য এই সেলে রয়েছে দু’টি মোবাইল ফোন নাম্বার (০১৭৬৯৬৯৩৫৩৫ ও ০১৭৬৯৬৯৩৫৩৬)। এ দু’টি নাম্বারে ফোন করে কিংবা ক্ষুদে বার্তা (এসএমএস) দিয়ে তাৎক্ষণিক অভিযোগ করা যায়।

এছাড়াও রয়েছে একটি ই-মেইল ঠিকানা (complain@police.gov.bd)। এই ই-মেইল ঠিকানাতেও লিখিত অভিযোগ করা যায়। এছাড়া ডাক কিংবা কুরিয়ার যোগে ‘আইজিপি কমপ্লেইন সেল’ –এপুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা যায়। ২০১৭ সালের ১৩ নভেম্বর ‘আইজিপি কমপ্লেইন সেল’ চালু করা হয়।

এছাড়া হয়রানির শিকার যে কেউ ৯৯৯ নম্বরে অভিযোগ করতে পারেন।

পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (মিডিয়া) সহেলী ফেরদৌস বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘পুলিশের দুর্নীতি, অনিয়ম ও বিভিন্ন অপরাধ প্রতিরোধ এবং বাহিনীতে স্বচ্ছতা ফিরিয়ে আনতে ‘‘আইজিপি কমপ্লেইন সেল’’ চালু করা হয়। পুলিশের যেকোনও সদস্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ এলে সেটা সংশ্লিষ্ট ইউনিটে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। তারা বিষয়টি খতিয়ে দেখে শাস্তির সুপারিশ করে থাকে। পরে পুলিশ সদর দফতর থেকে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা ছাড়াও ফৌজদারি মামলা করা হয়। অভিযোগ প্রমাণিত হলে পুলিশের সব পর্যায়ের সদস্যের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়।’

সহেলী ফেরদৌস আরও বলেন, ‘৯৯৯-এ যে কেউ অভিযোগ করতে পারবেন। তবে এটি জরুরি সেবার ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়, তাই এখানে হয়রানির বিষয়ে অভিযোগ না করে সুনির্দিষ্টভাবে ‘‘আইজিপি কমপ্লেইন সেল’’-এ মোবাইলে কিংবা ই-মেইল ও ডাকযোগে অভিযোগ করলেই ভালো হয়।’

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: