মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১০:৪৬ অপরাহ্ন

অনলাইন ডেস্ক:
বিলকিস (৩৬) নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার আহম্মেদপুর কৈডিমা গ্রামের আনোয়ারুল হকের স্ত্রী। পরকিয়ার টানে ১৮ বছরের সংসার ফেলে উধাও হয়েছেন তিনি। তাদের সংসারে ১৬ বছর বয়সের একটি মেয়ে রয়েছে। রোববার (২৯ এপ্রিল) রাত থেকে খোঁজ মিলছে না তার।স্থানীয়রা জানান, প্রায় দুই বছর আগে গুরুদাসপুর উপজেলার বৃণ্ডচাপিলা গ্রামের ছইর উদ্দিনের ছেলে শহিদুল ইসলাম আনোয়ারুলের বাড়ির পাশে দোকান দেন। দোকানে মালামাল কেনার সূত্রে বিলকিসের সঙ্গে তার পরিচয় ও প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

বিষয়টি জানাজানি হলে গ্রামে একাধিকবার সালিশও বসে। কিন্তু তারা গোপনে সম্পর্ক চালিয়ে যাচ্ছিলেন। গত রোববার রাতে সবার অগোচরে বিলকিস খাতুন স্বামী ও মেয়েকে ফেলে পরকীয়া প্রেমিক শহিদুল ইসলামের হাত ধরে পালিয়ে যান।শুক্রবার (৪ মে) বিলকিসের স্বামী আনোয়ারুল হক বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করে জানান, শহিদুল আমার সাজানো সংসার ভেঙে চুরমার করে দিয়েছে। তারপরও বুঝিয়ে-সুজিয়ে বাড়ি আনার জন্য বিভিন্ন জায়গায় খুঁজে ফিরছি, কিন্তু পাচ্ছি না।

এ বিষয়ে বিলকিস ও পরকীয়া প্রেমিক শহিদুলের সঙ্গে কয়েক দফা মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও মোবাইল বন্ধ থাকায় তা সম্ভব হয়নি।

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: