বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:৪৬ অপরাহ্ন

  নিজস্ব প্রতিবেদক:

বরকরই ইউনিয়নে নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থীর সভাকে কেন্দ্র করে ম্যাজিস্ট্রেটকে সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে চারজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ১০০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে কুমিল্লা জেলা প্রশাসনের অফিস সহকারী মো. মোস্তফা কামাল মুন্সী।

সোমবার (০৩ জানুয়ারি) রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে চান্দিনা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আরিফুর রহমান।

মামলার বাদী মোস্তফা কামাল মুন্সী বলেন, রোববার চান্দিনা উপজেলার ১২ নং বরকরই ইউনিয়নের বরকরই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. সাইফুল ইসলাম শিপন নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে জনসভার আয়োজন করে।

খবর পেয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা সেখানে গিয়ে নৌকার প্রার্থীকে আচরণবিধি ভঙ্গের বিষয়ে জিজ্ঞেস করেন। এ সময় জনসভায় থাকা ৫০-১০০ জন সমর্থক উত্তেজিত হয়ে সরকারি কাজে বাধা প্রদানসহ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে অবরুদ্ধের চেষ্টা করে।

খবর পেয়ে দেবীদ্বার সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আমিরুল্লাহ, চান্দিনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় আচরণবিধি লঙ্ঘন এবং প্রশাসনের কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে চারজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা ১০০ জনের নামে মামলা দায়ের করা হয়।

প্রয়াত সংসদ সদস্য অধ্যাপক আলী আশ্রাফের ছেলে ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোন্তাকিম আশরাফ টিটু অভিযোগ করে বলেন, নৌকার প্রার্থীদের পরাজিত করার জন্য নেতাকর্মী-সমর্থকদের ধরপাকড় শুরু করেছে পুলিশ প্রশাসন। রোববার বরকড়ই ইউনিয়নে আমাদের শান্তিপূর্ণ নির্বাচনী সভা পন্ড করার জন্য পুলিশ জল-কামান নিয়ে হাজির হয়।

চান্দিনা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আরিফুর রহমান বলেন, মামলার পর এখনও কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।  আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলমান রয়েছে।

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: