শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:০৮ পূর্বাহ্ন

(বারী উদ্দিন আহমেদ বাবর, নাঙ্গলকোট)
কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার বাঙ্গড্ডা ইউনিয়নের বাঙ্গড্ডা গ্রামে আমেনা বেগম নামের এক বিধবার বাড়ীতে হামলা ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। তিনি ওই গ্রামের মৃত মোছলেম উদ্দিনের স্ত্রী। বিগত ২০ বছর পূর্বে ৬ সন্তান রেখে মারা যায় তার স্বামী মোছলেম। শনিবার দিবাগত রাত ১ টার দিকে তাঁর নিজ বাড়িতে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

এসময় ওই আমেনা বেগম (৬০), তার মেয়ে রেহানা বেগম (৪০) ও ছেলে এরশাদ মিয়াকে (৩২) মারধর করে হামলাকারীরা।
আমেনা বেগম জানায়, একই গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে আমেরিকা প্রবাসী অহিদুর রহমানের সঙ্গে আমাদের জমি সংক্রান্ত দ্বন্দ্ব রয়েছে। অহিদুর রহমান আমার স্বামী মোছলেমের কাছ থেকে তাঁর মৃত্যুর পূর্বে ২৪ জমি ক্রয় করেন বলে দাবী করে ওই জমি রেজিস্ট্রি করে দেয়অর জন্য আমাদেরকে চাপ সৃষ্টি করে আসছে।

জমি রেজিষ্ট্রি করে না দেয়ায় স্থানীয় চেয়ারম্যান মাঞজাহানের সাথে আঁতাত করে আমাদের হয়রানি করছে। এরজের ধরে গভীর রাতে ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান মজুমদারের ঘনিষ্ট ১৫-২০ জনের একটি দল হামলা চালিয়ে আমার মেয়ে রহানা বেগম, ছেলে এরশাদ মিয়া ও আমাকে মারধর করে এবং ঘরের আসবাবপত্র ও থালা বাসন ভাংচুর করে। এছাড়াও আমরা তাদেরকে ওই সম্পত্তি লিখে না দিলে আমাদেরকে গ্রাম ছাড়ার হুমকি দিয়ে চলে যায়। এ ঘটনার সংবাদ পেয়ে রাতেই নাঙ্গলকোট থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ ব্যপারে জানতে বাঙ্গড্ডা ইউপির চেয়ারম্যান শাহজাহান মজুমদারের মুঠোফোনে জানান, তারা মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। আমি এর প্রতিবাদ করায় আমার বিরুদ্ধে এসব প্রপাগান্ডা চালাচ্ছে। জানতে চাইলে নাঙ্গলকোট থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আশ্রাফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সংবাদ পেয়ে রাতেই পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছে। অভিযোগ পাওয়ার পর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: