বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ০৪:৪০ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক:

কুমিল্লার চান্দিনায় একই স্থানে লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি) ও ছাত্রলীগ পাল্টাপাল্টি ঈদ পুনর্মিলনী সভা কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার ( ৯ মে) দুপুরে চান্দিনা চান্দিনা রেদোয়ান আহমেদ কলেজ সামনে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় দুজন গুলিবিদ্ধ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে । পরবর্তী পুলিশ সাবেক এমপি এলডিপির মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদকে চান্দিনা থানায় নিয়ে যায়।

উত্তেজিত ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগের নেতাকর্মীরা থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ মিছিল করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (দাউদকান্দি সার্কেল) মোঃ ফয়েজ ইকবাল।

তিনি জানান, পরিস্থিতি বর্তমানে স্বাভাবিক রয়েছে। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের গুলির ঘটনায় এলডিপির মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদকে আটক করা হয়েছে। এই বিষয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক লিটন সরকার বলেন, রেদোয়ান আহমেদ চান্দিনার মাটিতে বর্বরোচিত ঘটনা ঘটিয়েছে। সে নিজ হাতে আমার নেতা কর্মীদের গুলি করেছে। তারা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। এ ঘটনার সুস্ঠু বিচার দাবি করছি।

গুলিবিদ্ধ আহতরা হলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এমবিএ ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ছাত্র স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে জনি সরকার ও চান্দিনার নুরুল ইসলামের ছেলে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা নাজমুল হাসান।

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সরদার জাকির হোসেন বলেন, দুপুরে দুইজন গুলিবিদ্ধ যুবককে হাসপাতালে আনা হয়েছে। জনি সরকারে হাতে ও নাজমুলের পায়ে গুলি লেগেছে। তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

চান্দিনা ৭ আসনের এমপি অধ্যাপক ডাঃ প্রাণ গোপাল দত্ত বলেন, এটি একটি ন্যাক্কারজনক ঘটনা। বিগত বিএনপি সরকারের একজন মন্ত্রীর গুলিতে আমার কয়েকজন কর্মী গুরুতর আহত হয়েছে ৷ আমি এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই ৷ আমি এই ব্যাপারে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সজাগ দৃষ্টি রাখার অনুরোধ করছি এবং একই সাথে এলাকার সকলকে শান্তি বজায় রাখার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি ৷

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: