শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৬:৩৮ অপরাহ্ন

( জাগো কুমিল্লা.কম)

“শিক্ষার পাশাপাশি আনন্দই হোক বহু প্রতিভা বিকাশ” এই শ্লোগানের মধ্য দিয়ে ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কুমিল্লা আইন কলেজের শিক্ষার্থীদের প্রতিষ্ঠিত “কুমিল্লা আইন কলেজ ফ্রেন্ডস ক্লাব” এর উদ্যোগে আনন্দ ভ্রমন ও সাংস্কৃতিক ও সাহিত্য আড্ডার মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।

১৪জুলাই ২০১৮ শনিবার দিনব্যাপী কুমিল্লা আইন কলেজ ফ্রেন্ডস ক্লাব এর উদ্যোগে আনন্দ ভ্রমন করা হয়। কুমিল্লা লালমাই লেকল্যান্ড, কুমিল্লা সামাজিক বন বিভাগ রাজেশপুর ফরেস্টবিট, কুমিল্লা কোটবাড়ী পল্লী একাডেমী (বার্ড)সহ বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রে পর্যটক হিসেবে ঘুরাফেরা করা হয়। সকালে নাস্তা, দুপুরে ছন্দু হোটেলে আলুর বর্তা দিয়ে ভূরিভোজ, বিকেলে সাহিত্য আড্ডা, সন্ধ্যায় মনোরম পরিবেশে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

এ সময় ফ্রেন্ডস ক্লাবের সদস্য কুমিল্লা জর্জ কোর্টের এড.আল মাহমুদ সাগর, রায়হানা আক্তার, হেলাল উদ্দিন ইমন, সৈয়দ ফুয়াদ, জে এস যোবায়ের, কাজী তুহিন, সৈয়দ জাকারিয়া আলম সাকিব, ক্লাবের আহ্বায়ক সাংবাদিক ও গীতিকবি আক্কাস আল মাহমুদ হৃদয়, সদস্য সোহাগ, জোহরা ফেরদৌস, জহির, মাছুম ভূইয়া, রিমন, সিয়ামসহ ২০১৭/১৮ শিক্ষাবর্ষের অন্যান্য ছাত্রছাত্রীবৃন্দ।

আইন কলেজ ফ্রেন্ডস ক্লাবের দর্শনার্থীদের কুমিল্লা সামাজিক বন বিভাগ রাজেশপুর ফরেস্ট বিট পর্যটক কেন্দ্র পরিদর্শন করে বলেন, কুমিল্লার অন্যতম সৌন্দর্য্যরে স্থান হচ্ছে রাজেশপুর ফরেস্ট বিট। এ বন বিভাগটি সৌন্দর্য্য দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে নিয়মিত প্রশাসনিক তত্ত্বাবধায়ন না থাকাতে।

এ বনবিভাগে অশ্লীল কার্যক্রম চলে বলে স্থানীয়দের কাছ থেকে জানা যায়। ক্লাবের সকল সদস্যরা প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষন করে বলেন, এ পর্যটন কেন্দ্রটি যদি পুনরায় তত্ত্বাবধায়ন করা হয় তাহলে বন বিভাগ সৌন্দর্য্যরে পাশাপাশি কুমিল্লার আকর্ষনীয় পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে উঠবে এবং দেশ ও বিদেশের দর্শনার্থীর সংখ্যা বেড়ে যাবে। এতে করে কুমিল্লার সুনাম বয়ে আনবে এবং এ বনবিভাগের মাধ্যমে সরকারের রাজস্ব আয় বৃদ্ধি পাবে।

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: