শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:৩২ অপরাহ্ন

(সৌরভ মাহমুদ হারুন, বুড়িচং)
পড়া না পাড়ায় গৃহ শিক্ষিকা বেত্রাঘাত করলে রাগে ক্ষোভে ৫ম শ্রেনীতে পড়–য়া এক স্কুল ছাত্রী গলায় ফাস দিয়ে আতœহত্যা করেছে। কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার চৌব্বাস গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানা যায়, উপজেলার শশীদল ইউনিয়নের চৌব্বাস মধ্যপাড়া গ্রামের বিল্লাল হোসেনের ৪ সন্তানের মধ্যে ৩য় সন্তান দেউশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেনীর ছাত্রী আখি আক্তার (১০)।

আখি এবং তার ছোট ভাই একই স্কুলের ৩য় শ্রেনীর ছাত্র জাবেদ প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৭টায় তাদের নিজের ঘরে পাশের বাড়ীর কিন্ডার গার্টেন এর শিক্ষিকা লীমা আক্তারের নিকট প্রাইভেট পড়ত। বুধবার সকালে প্রাইভেট পড়া অবস্থায় পড়া না পাড়ায় গৃহ শিক্ষিকা তাকে বেত্রাঘাত করে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে আখির ছোট ভাই জাবেদ।

নিহত আখির মা ফরিদা আক্তার জানায়, সকাল ৯টায় অন্যান্য দিনের মত প্রাইভেট পড়া শেষে আখিকে খুজে না পেয়ে ১৫/২০মিনিট পর তিনি বাড়ির ছাদে গিয়ে দেখেন ছাদের সিড়ির দরজার সাথে আখি গলায় ওড়না পেচিয়ে ফাস দিয়ে অর্ধমৃত্যু অবস্থায় ঝুলে আছে। তাৎক্ষণিক তিনি আখিকে ঝুলন্ত অবস্থা থেকে নামিয়ে তাকে বাচাতে হাসপাতালে নেবার চেষ্টা করলে পথেই আখি মৃত্যুবরণ করে।

খবর পেয়ে ব্রাহ্মনপাড়া থানার এসআই জাকির হোসেন ও সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে লাশের প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করে এ প্রতিনিধিকে জানান, লাশের গলায় ফাসের চিহ্ন রয়েছে। এছাড়া শরীরের অন্য কোথাও কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি।

পরিবারের কারো কোন অভিযোগ না থাকায় ময়না তদন্ত ছাড়াই লাশ পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: