শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০৪:৪৯ পূর্বাহ্ন

(বারী উদ্দিন আহমেদ বাবর, নাঙ্গলকোট)
কালবৈশাখী ঝড়ে কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার আদ্রা উত্তর ইউনিয়নের মেরকট ডিএসডি মাদ্রাসার এবতেদায়ী ভবনের টিনের চাল উড়ে গেছে। ফেটে গেছে পাকা ভবনের দেয়াল। এতে খোলা আকাশের নিচে পাঠদান করাতে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। শুক্রবার বিকাল থেকে রাত পর্যন্ত হওয়া কালবৈশাখী ঝড়ে মাদ্রাসার এমন ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

মাদ্রাসার পাশের পল্লী চিকিৎসক ডাঃ আবদুল্লাহ বলেন, কালবৈশাখী ঝড়ে মাদ্রাসার পাকা ভবনের সিঁড়ির কক্ষে ফাটল ধরেছে। যেকোন সময় ধসেও যেতে পারে। টিনের চালা উড়ে গিয়ে অন্য স্থানে পড়েছে। এবতেদায়ী ৩য় শ্রেণী, ৬ষ্ঠ শ্রেণী ও অফিস কক্ষ লন্ডভন্ড হয়ে গেছে।’

মাদ্রাসার সুপার মাওঃ মো. আবদুর গফুর জানান, ঝড়-বৃষ্টির এ মৌসুমে খোলা আকাশের নিচে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করানো অসম্ভব। তাই মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির মাধ্যমে ও উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে সমাধানের চেষ্ঠা রয়েছে। এছাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

নাঙ্গলকোট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দাউদ হোসেন চৌধুরী বলেন, ‘মাদ্রাসাটি ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার খবর পেয়েছি। শিক্ষার্থীদের যাতে পাঠদান বন্ধ না হয়, সে ব্যাপারে প্রয়োজনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এদিকে, হঠাৎ কালবৈশাখীর ঝড়ে ফসল ও ঘর-বাড়ীর ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। শুক্রবার বিকাল থেকে রাত পর্যন্ত উপজেলার বেশ কিছু এলাকায় কালবৈশাখী ঝড় আঘাত হানে। এতে ওই মাদ্রাসাসহ মাদ্রাসার পাশের দুলালের টিনের ঘরের উপর বিশালাকার একটি গাছ উপড়ে পড়ে।

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: