শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:৩২ অপরাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক:

সন্তান গর্ভে থাকা অবস্থায় গত ২০ পূর্বে  করোনা আক্রান্ত হয়েছে শোয়েব মাহমুদ ভূঁইয়ার স্ত্রী ।  তবে গত ৪ দিন আগে করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসলেও বাঁচানো যাইনি গর্ভের সন্তানকে । শুক্রবার (১৩ আগস্ট)  রাত দেড়টায় কুমিল্লার একটি বেসরকারি হসপিটালে মৃত অবস্থায় জন্মগ্রহন করে। মায়ের গর্ভে বাচ্চাটির বয়স ছিল ৭মাস ১৫দিন।

এ বিষয়ে নবজাতক বাচ্চাটির পিতা শোয়েব মাহমুদ ভূঁইয়া বলেন, স্ত্রীকে নিয়ে কুমিল্লা নগরীর মুরাদপুরে থাকি। গত বছর আমাদের বিয়ে হয়েছে।  এটাই আমার প্রথম সন্তান ছিল । কিন্তু আমাদের ভাগ্য খারাপ সন্তানের মুখ দেখলেও জীবত দেখতে পারিনি । করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর নিয়মিত পরীক্ষায় করিয়েছি।  বাচ্চাটি  স্বাভাবিক অবস্থায় ছিল । কিন্তু গত ৪ দিনে করোনা পজেটিভ আশার পর আমার স্ত্রীর সন্দেহ হয় বাচ্চা নড়াচড়া কম করছে । পরবর্তীতে গাইনী বিশেষজ্ঞ দেখানোর পর জানানো হয় আমাদের সন্তান আর বেঁচে নেই।   পরে ডাক্তার মৃত নবজাতকটি নরমাল ডেলিভারী করতে সক্ষম হয়। আমার স্ত্রী এখন ভাল আছে, তবে মানসিক ভাবে ভেঙ্গে পড়েছে। গভীর রাতে কোথায় কাফনের কাপড় পাব তাই কোন উপায় না পেয়ে বিবেক সংগঠনকে জানানো হয়।

“বিবেক” এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ইউসুফ মোল্লা টিপু বলেন, রাত দেড়টার পর আমাদের হটলাইনে কল করে এই নবজাতকটি দাফন করার অনুরোধ করেন। আমি প্রথমে বলেছি সকালে আসব। তবে ডাক্তার মৃত নবজাতকটি দ্রুত সময়ের মধ্যে দাফন করার অনুরোধ করেন। পরবর্তীতে বিবেকের সদস্যরা নবজাতকটিকে গোসল, জানাযা নামাজ শেষ কুমিল্লা টমছম ব্রীজ কবরস্থানে রাত তিনটায় দাফন সম্পন্ন করে।

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: