শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:২৩ অপরাহ্ন

(আবু সুফিয়ান রাসেল, কুমিল্লা)

কুমিল্লার ১৭ উপজেলায় বিভিন্ন দেশ থেকে আসা ৬১০ জন প্রবাসীকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। তাদের মধ্যে তিন জনের মধ্যে করোনাভাইরাসের কোনও লক্ষণ দেখা যায়নি। তারা স্বাভাবিক চলাফেরা করছেন। এ তিনজন গত ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন।

জেলা সিভিল সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্যমতে, সদর উপজেলায় ২৪, মেঘনা ১৭, হোমনা ১৬, তিতাস ৭৮, দাউদকান্দি ২২, মুরাদনগর ২২৫, দেবিদ্বারে ৬, বুড়িচং ১১, বি. পাড়া ০৯, চান্দিনা ২২, বরুড়া ৮, লাকসাম ১১, মনোহরগঞ্জ ৪০, নাঙ্গলকোট ২৭, চৌদ্দগ্রাম ১৪, সদর দক্ষিণে ৪৭ ও লালমাই উপজেলায় ৩৩ জনসহ কুমিল্লা ৬১০জন হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন।

এ বিষয়ে জেলা সিভিল সার্জন ডা. নিয়াতুজ্জামান বলেন, বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) পর্যন্ত কুমিল্লার বিভিন্ন উপজেলায় করোনাভাইরাস আক্রান্ত দেশ থেকে আসা ৬১০ জন প্রবাসী হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন। তিন জন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার পর তাদের মধ্যে করোনার কোন লক্ষণ পাওয়া যায়নি। যে কোন প্রবাসী দেশে ফেরার পর স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে ১৪ দিন পর্যন্ত বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার জন্য তাদের পরামর্শ দেয়া হয়েছে। এ বিষয়টি প্রশাসন দেখাশোনা করছেন। এ ছাড়া সকলে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন এ কর্মকর্তা।

সিভিল সার্জন আরো বলেন, করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সেবা দেওয়ার জন্য যা কিছু প্রয়োজন সকল কিছু আজ কুমিল্লায় এসে পৌঁছেছে। করোনা ভাইরাস আক্রান্ত অন্ততপক্ষে শতজন রোগীকে সেবা প্রদান করা যাবে।। আজকের মধ্যে ই সকল উপজেলায় এ সকল প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র পাঠানো হবে।

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: