শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:০৪ পূর্বাহ্ন

অনলাইন ডেস্ক:
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগার থেকে দেশবাসী ও দলের নেতাকর্মী-সমর্থকদের পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বলে জানান দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী। তিনি বলেন, ‘কারাগারে খালেদা জিয়ার সঙ্গে পরিবারের সদস্যরা দেখা করতে গেলে তিনি তাদের মাধ্যমে দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানান। একইসঙ্গে দেশবাসীর কাছে তার জন্য দোয়াও চেয়েছেন।’

শুক্রবার (১৫ জুন) বেলা ১২টায় নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, ‘মিথ্যা, সাজানো ও জাল নথি তৈরি করে সরকারের নির্দেশে খালেদা জিয়াকে সাজা দিয়ে কারাবন্দি করা হয়েছে। মূল মামলায় জামিন পেলেও ঈদের আগে তাকে মুক্তি দেওয়া হয়নি এবং তার পছন্দমতো হাসপাতালে চিকিৎসারও ব্যবস্থা করা হয়নি।’
রিজভী আরও বলেন, ‘রাজনীতিতে যতই বাদানুবাদ থাক, দেশবাসীর প্রত্যাশা ছিল পছন্দমতো দেশনেত্রীর চিকিৎসা নিশ্চিত হবে ও পবিত্র ঈদুল ফিতরের আগে দেশনেত্রী মুক্তি পাবেন। কিন্তু মূল মামলায় জামিন পাওয়ার পরও সরকার বিচার প্রক্রিয়ায় হস্তক্ষেপ করে তার কারামুক্তি আটকে দিয়েছে।’

সরকার খালেদা জিয়ার চিকিৎসার ব্যবস্থা না করে বরং চিকিৎসা নিয়ে পানি ঘোলা করছে এমন অভিযোগ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘৭৩ বছর বয়স্ক একজন জনপ্রিয় নেত্রীর চিকিৎসা নিয়ে সরকারের চরম নিষ্ঠুরতা ও অমানবিকতার নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করেছে। অমানবিক ও নির্মম নিষ্ঠুরতার প্রতিযোগিতায় বিশ্বের বড় বড় স্বৈরশাসকদেরও হার মানিয়েছেন শেখ হাসিনা। বর্তমান প্রধানমন্ত্রীও কারাগারে বন্দি থাকা অবস্থায় পছন্দ অনুযায়ী বেসরকারি হাসপাতালেই চিকিৎসা নিয়েছেন। এমনকি প্যারোলে মুক্তি নিয়ে তিনি দেশের বাইরে চিকিৎসা নিয়েছেন। অথচ খালেদা জিয়াকে পরিত্যক্ত কারাগারে বন্দিরেখে, ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের দিয়ে চিকিৎসা করতে না দিয়ে শেখ হাসিনা চরম প্রতিহিংসার খেলায় মেতে উঠেছেন।’

ঈদুল ফিতরের আগে বিএনপির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করে রিজভী আহমেদ বলেন, ‘যশোর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সাবেরুল হক সাবু, যশোর নগর বিএনপির সভাপতি মারুফুল ইসলাম. মাদারীপুর সদর পৌর বিএনপি নেতা আল আমিনকেও গতকাল বৃহস্পতিবার গ্রেফতার করা হয়েছে। আমি এর নিন্দা গ্রেফতারকৃতদের মুক্তি দাবি করছি।

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: