শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:০৯ অপরাহ্ন

বারী উদ্দিন আহমেদ বাবর, নাঙ্গলকোট:
পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এমপি হুশিয়ারী উচ্চারন করে সিএনজি চালিত অটোরিক্সা চালকদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেছেন, আপনারা কাউকে কোন চাঁদা দিবেন না। কেউ চাঁদা চাইলে আমাকে জানাবেন। এখন থেকে সারাদিনে যা আয় করবেন সবটুকুই আপনাদের পরিবারের জন্য খরচ করবেন। আমি বলে দিলাম আজ থেকে সিএসজি ষ্ট্যান্ড থেকে কোন ধরনের দৈনিক ও মাসিকসহ কোন ধরনের চাঁদা দিবেন না।

আপনাদের সিএনজিগুলোর যদি কোন বৈধ কাগজপত্র না থাকলে পৌর মেয়র আবদুল মালেক ও উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান আবু ইউছুফ ভূঁইয়াকে জানাবেন। ওরা সকল ব্যবস্থা নিবে তবুও কাউকে চাঁদা দিবেন না। আমি আপনাদের সব ধরনের ব্যবস্থা করবো। আপনাদের সুবির্ধার্থে এ উপজেলার রাস্তা ঘাটের উন্নয়ন করা হয়েছে। আপনাদের প্রতি অনুরোধ দুর্ঘটনা রোধে সচেতন হউন। সড়কের যেখানে সেখানে সিএনজি দাঁড় করিয়ে যাত্রী উঠানামা করবেন না।

মন্ত্রী আরো বলেন, মনে রাখবেন মানুষকে ভালোবাসলে আল্লাহকে পাওয়া যায়। আপনারা যদি কখনো কোন যাত্রীর কাছে ভাড়ার টাকা না থাকে বা কম থাকে তাহলেও নিবেন। গতকাল মন্ত্রী নাঙ্গলকোট সিএনজি ষ্ট্যান্ডে শ্রমিকদের সাথে এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন।

পৌর মেয়র আবদুল মালেকের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আ.লীগের সদস্য সচিব অধ্যক্ষ আলহাজ¦ আবু ইউসুফ, যুগ্ম-আহবায়ক ছাদেক হোসেন ভূঁইয়া, পৌর আ.লীগ সভাপতি একেএম মনিরুজ্জামান, উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান আবু ইউছুফ ভূঁইয়া ও উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবদুর রাজ্জাক সুমন প্রমুখ।

পরে মন্ত্রী উপজেলার বক্সগঞ্জ ইউনিয়ন আ.লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত বক্সগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে দোয়া ও ইফতার মাহফিলে অংশ নিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, এই রমজান মাসে আল্লাহ যেন আমাদের হেদায়েত দান করেন। আল্লাহপাক কুরআনে বলেছে এমাসে ইবাদত করলে ৭০ গুন সওয়াব পাওয়া যাবে। তাই আমরা আল্লাহর উপর বিশ^াস রেখে নিয়মিত নামাজ আদায় করবো তারাবীহের নামাজ পড়বো। সামর্থ্য থ্কালে যাকাত দিব। যাকাত দিলে সম্পদ বাড়ে। হজ্জ্ব আদায় করবো। বাবা মায়ের সাথে ভালো ব্যবহার করবো। পরিবারের সদস্যদের সাথে সদাচরন করবো। স্ত্রীকে ভালোবাসবো স্ত্রীর সাথে খারাপ ব্যবহার করবো না। তাহলে আমরা খাঁটি মুসলমান হয়ে মরতে পারবো।

মন্ত্রী আরো বলেন, এ এলাকার সকল সড়কের কাজ আগামী ১ মাসের মধ্যে শেষ করবো। রাস্তাগুলোতে কোন কাঁদা থাকবে না। বাজারগুলোতে বড় বড় ভবন করা হবে। নাঙ্গলকোট বাজারে ১০ তলা ভবন হবে। বক্সগঞ্জ বাজারে ৪ তলা ভবন করা হবে। যেহেতু আমাদের যায়গা কম তাই আমরা উপরের দিকে যাব। আপনাদের যাতে বাজার সদাই করতে অসুবিধা না হয়, সেজন্য এসব ভবন করে দেয়া হবে।

বক্সগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আহবায়ক ফয়েজ কবিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আ.লীগের আহবায়ক মো. রফিকুল হোসেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দাউদ হোসেন চৌধুরী, থানার ওসি মোহাম্মদ আইয়ুব, মৌকারা ইউপির চেয়ারম্যান আবু তাহের, ঢালুয়া ইউপির চেয়ারম্যান নাজমুল হাসান ভূঁইয়া বাছির, রায়কোট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মুজিবুল হক, সাতবাড়ীয়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. ইয়াছিন, বাঙ্গড্ডা ইউপির চেয়ারম্যান শাহজাহান, উপজেলা যুবলীগের সদস্য মাঈন উদ্দিন কিরন ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক মামুন প্রমুখ।

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: