শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:০২ অপরাহ্ন

অনলাইন ডেস্ক:
মাদকবিরোধী অভিযানের সময় র‍্যাবের সঙ্গে তথাকথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত কক্সবাজারের টেকনাফ পৌরসভার কাউন্সিলর একরামুল হকের পরিবারের সরবরাহ করা অডিও ক্লিপটি এরই মধ্যে সরকারের হাতে এসে এসেছে এবং তার ভিত্তিতে প্রাথমিক তদন্তের কাজ শুরু হয়েছে।

রবিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে সিদ্ধেশ্বরীতে স্ট্যাম্পফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের জনসচেতনতা বিষয়ক এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা জানান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কোনও হত্যা বা অ্যাক্সিডেন্ট (দুর্ঘটনা) আমাদের তদন্তের বাইরে নয়। সব হত্যার বিষয়ে তদন্ত হবে। যেখানে যা দরকার সেটা করা হবে।

তিনি বলেন, মাদকের লিস্ট অনেক লম্বা। যতদিন পর্যন্ত মাদক নির্মূল না হয় ততদিন আমাদের অভিযান চলবে। তবে অভিযানে কেউ নিহত হোক এটি আমাদের কাম্য নয়। আমাদের উদ্দেশ্য হলো মাদকের ভয়াবহতা থেকে সবাইকে সরিয়ে আনা।

মাদকবিরোধী অভিযানে টেকনাফে গত ২৬ মে একরামুল হক নিহত হন। তাঁকে বাসা থেকে ডেকে নেওয়ার পর হত্যা করা হয়েছে বলে তাঁর পরিবার অভিযোগ করেছে।

একরামুল নিহত হওয়ার ঘটনা নিয়ে অডিও ইউটিউবে প্রকাশ হওয়ার পর তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এ ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলমান মাদকবিরোধী অভিযান নিয়ে নানা প্রশ্ন উঠেছে। মানবাধিকারকর্মীরা একরামের মৃত্যুর পুরো ঘটনার তদন্ত দাবি করেছেন।

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: