সোমবার, ১০ অগাস্ট ২০২০, ০৫:০৬ পূর্বাহ্ন

অনলাইন ডেস্ক:
কুমিল্লা নগরীর ২৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলমগীর হোসেন ও তার ভাইদের হামলায় আপন চাচাতো ভাই আক্তার হোসেন (৫৫) খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় কাউন্সিলরের তিন ভাইকে আটক করেছে পুলিশ। তবে ঘটনার পর গা-ঢাকা দিয়েছেন অভিযুক্ত কাউন্সিলর।

শুক্রবার (১০ জুলাই) সদর দক্ষিণ উপজেলার কোটবাড়ি রোডের দক্ষিণ চাঙ্গিনী মোড় এলাকায় কাউন্সিলর আলমগীর হোসেনের বাড়ি সংলগ্ন মসজিদের সামনে হামলার এ ঘটনা ঘটে। নিহত আক্তার হোসেন মৃত আলী হোসেনের ছেলে। তিনি পেশায় ব্যবসায়ী।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, নিহত আক্তার হোসেন ও অভিযুক্ত কাউন্সিলর আলমগীর হোসেন সম্পর্কে চাচাতো ভাই। এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও ব্যবসা বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে তাদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল।

শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আলমগীরের ভাই বিল্লাল হোসেনের সঙ্গে আক্তার হোসেনের সমর্থক আলালের কথা কাটাকাটি হয়। ঘটনার জের ধরে জুমার নামাজের পর দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়ায়। কাউন্সিলর আলমগীর, তার তিন ভাই, সমর্থকরা আক্তার হোসেন ও তার সমর্থকদের ওপর হামলা চালায়। হামলায় আক্তার হোসেনসহ চার জন গুরুতর আহত হন। পরে তাদের উদ্ধার করে নগরীর একটি হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা আক্তারকে মৃত ঘোষণা করেন।

সদর দক্ষিণ মডেল থানার ওসি মো. নজরুল ইসলাম জানান, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে কাউন্সিলর আলমগীর ও তার ভাইদের হামলায় ব্যবসায়ী আক্তার হোসেন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় কাউন্সিলর আলমগীরের তিন ভাই আমির হোসেন, বিল্লাল হোসেন ও জাহাঙ্গীর হোসেনকে আটক করা হয়েছে। কাউন্সিলর আলমগীর পলাতক রয়েছেন।

আরও পড়ুন

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
২,৯৪৯
৩৭
২,৮৬২
১৩,৪৮৮
সর্বমোট
১৭৮,৪৪৩
২,২৭৫
৮৬,৪০৬
৯০৪,৫৮৪
%d bloggers like this: