সোমবার, ১০ অগাস্ট ২০২০, ০৪:৪৮ পূর্বাহ্ন

মাহফুজ নান্টু, কুমিল্লা প্রতিনিধি ঃ কারো হাতে তুলে দিলেন ফলজ গাছের চারা। কারো হাতে তুলে দিলেন বনজ ও ঔষধি গাছের চারা। এভাবে অন্তত দু’ হাজার গাছের চারা তুলে দিলেন। অর্পিত দায়িত্ব পালনে বদ্ধ পরিকর তিনি। তবে গাছ ভালোবাসেন। প্রকৃতির সান্নিধ্য ভালোবাসেন। তাই নিরবে নিবৃত্তে বৃক্ষরোপন আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। প্রচার বিমুখ মানুষটি গত পনের বছর ধরে নিজের হাতে গাছের চারা রোপন করে আসছেন। পাশাপাশি সাধারণ মানুষের মাঝে গাছের চারা বিতরন করেন। তারই ধারাবাহিকতায় আজ শুক্রবার বেলা ১১ টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লা সৈয়দপুর এলাকায় গাছের চারা বিতরন করলেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাখাওয়াত হোসেন। কুমিল্লা জেলা পুলিশে অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের দায়িত্ব পালন করেছেন। এখন পদোন্নতি পেয়েছেন। পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর পুলিশ সুপার হিসেবে চলতি সপ্তাহে ব্রাহ্মনবাড়িয়ায় যোগদান করবেন।

শুক্রবার সকালে গাছের চারা বিতরনে আগে নিজেই নার্সারিতে যান। নিজের হাতে বেছে বেছে একত্রে করেন ফলজ-বনজ ও ঔষধি গাছের চারা। পরে আগত সবার হাতে তুলে দেন গাছের চারাগুলো। এছাড়াও দূরবর্তী যারা আছেন তাদের জন্য পিকআপ ভ্যান করে গাছের চারা পাঠিয়ে দেন।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে রোপনের জন্য বিতরনকৃত চারা গ্রহণ করেন ছাত্রলীগ সভাপতি ইলিয়াস হোসেন সবুজ। গাছের চারা পেয়ে ইলিয়াস হোসেন সবুজ এক অনুভূতি ব্যক্ত করে বলেন, পদোন্নতি পেয়ে পুলিশ সুপার হয়েছেন মোহাম্মদ শাখাওয়াত হোসেন। কুমিল্লায় তার কর্মজীবনে একনিষ্ঠতা দেখেছি। তিনি আজ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে রোপণ করার জন্য আমার হাতে ফলজ-বনজ ও ঔষধি গাছের চারা তুলে দেন। নিঃসন্দেহে একটি মহৎ কাজ। বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাখাওয়াত হোসেনের জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই।

গাছের চারা পেয়ে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন কুমিল্লা দক্ষিন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু তৈয়ব অপি। তিনি বলেন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাখাওয়াত ভাই এক কর্মনিষ্ঠ মানুষ। তিনি প্রকৃতি ভালোবাসেন। দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি তিনি সবুজ আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। আজ তিনি আমাদের হাতে গাছের চারা তুলে দেন। আমরা তার প্রতি কৃতজ্ঞ।

গাছের চারা বিতরন শেষে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাখাওয়াত হোসেন বলেন, প্রকৃতির বিপর্যয় রোধ করতে হলে সবচেয়ে সহজ সাশ্রয়ী ও কার্যকরি উদ্যেগ হলো ব্যক্তি উদ্যেগে বৃক্ষরোপন করা। এ কাজটা আমার ভালো লাগে। তাই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালীন সময় থেকে গাছ লাগাই। এ পর্যন্ত নিজের হাতে রোপণসহ বিতরণ করেছি অন্তত কুড়ি হাজার গাছের চারা। গাছের চারা রোপনে আমার একটা লক্ষ আছে। সে লক্ষ্যেই এগিয়ে যাচ্ছি।

আরও পড়ুন

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
২,৯৪৯
৩৭
২,৮৬২
১৩,৪৮৮
সর্বমোট
১৭৮,৪৪৩
২,২৭৫
৮৬,৪০৬
৯০৪,৫৮৪
%d bloggers like this: