শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২:৪৬ পূর্বাহ্ন

মনোহরগঞ্জ প্রতিনিধি:
কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলায় করোনাভাইরাসের নমুনা সংগ্রহকারী টিমের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় দুইজন নারী চিকিৎসককেও  লাঞ্ছিত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার (১৯ জুন) দুপুরে উপজেলার বিপুলাসার ইউনিয়নের জাওরা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে বেলা ৩ টার দিকে এই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন মনোহরগঞ্জ থানার নাথেরপেটুয়া তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরির্দশক মো.জাফর ইকবাল।

তিনি জানান, এই ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবসা গ্রহণের মাধ্যমে দোষীদের আইনের আওতায় আনা হবে।

কুমিল্লা জেলা করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ কমিটির সমন্বয়ক ও মনোহরগঞ্জ উপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.নিসর্গ মেরাজ চৌধুরী জানান, বিপুলাসার এলাকায় আমাদের এক পজেটিভ রোগীর ১৮ দিন হয়ে গেছে। তাকে ১৪ দিন পরই সুস্থ ঘোষণা করার কথা। এমন অবস্থায় আমাদের নমুনা সংগ্রহকারী একটি টিম উপজেলার লক্ষণপুর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে  নাথেরপেটুয়ায় নমুনা সংগ্রহ করতে যাচ্ছিল। সেখানে যাওয়ার সময় আমি তাদের নির্দেশ দেই, যেহেতু ওই এলাকার সামনে দিয়ে যাচ্ছেন, তাহলে ওই রোগীকে সুস্থ ঘোষণা করার আগে একটা নমুনা সংগ্রহ করে নিন।

ডা.নিসর্গ মেরাজ চৌধুরী আরো জানান, বৃষ্টিতে কাঁদা মাটির কারনে গাড়ি রোগীর বাড়ি পর্যন্ত যেতে পারছে না,  তাই রোগীকে তার গ্রামের পাশেই একটি স্কুল মাঠে আসতে বলা হয়। রোগীকে মাস্ক, গ্লাভস পড়ে হেঁটে একা আসতে বলা হয়। সে সেভাবেই আসে। এরপর তার নমুনা সংগ্রহের সময় স্থানীয় একদল লোক আমাদের টিমকে ঘিরে ধরে। এ সময় তারা বলে কার পারমিশনে এখানে নমুনা সংগ্রহ করতে এসেছেন? ওই টিমে দুজন মহিলা ডাক্তারও ছিলো। লোকগুলো তাদের সাথেও বাজে ব্যবহার করে। পরে দুইজন মহিলা চিকিৎসকদের রক্ষার চেষ্টাকালে স্বাস্থ্য সহকারীকেও তারা মারার জন্য উদ্দত হয়। পরবর্তীতে উপজেলা পরিষদ, প্রশাসন, পুলিশ ও রাজনৈতিক ব্যক্তিদের সহযোগিতায় টিম সেখান থেকে নমুনা সংগ্রহ করে ফিরে আসে।

তিনি আরো জানান, এই ঘটনায় উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে। একই সাথে রাষ্ট্রীয় কাজে বাধা দেওয়ায় জন্য দোষীদের কঠোর বিচারের দাবি জানানো হচ্ছে।

আরও পড়ুন

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
২,৯৪৯
৩৭
২,৮৬২
১৩,৪৮৮
সর্বমোট
১৭৮,৪৪৩
২,২৭৫
৮৬,৪০৬
৯০৪,৫৮৪
%d bloggers like this: