সোমবার, ১০ অগাস্ট ২০২০, ০৪:৩৭ পূর্বাহ্ন

আনোয়ারুল ইসলাম, ব্রাহ্মণপাড়া

কুমিল্লার ব্রা‏হ্মণপাড়ায় চাঞ্চল্যকর যবকের মৃত দেহ উদ্ধারের ১০দিন পর মস্তকটি পুকুর থেকে উদ্ধার করেছে কুমিল্লার পিবিআই পুলিশ। ওই মামলার গ্রেপ্তার হওয়া এক আসামীর তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ গতকাল সোমবার বিকালে পুকুর থেকে খন্ডিত মস্তকটি উদ্ধার করেছে। গ্রেপ্তার হওয়া ওই ব্যক্তি হলেন কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা সদরের জামাল হোসেন

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, ব্রা‏হ্মণপাড়া উপজেলার সাহেবাবাদ ইউনিয়নের টাটেরা গ্রামের একটি পুকুরপাড়ের নির্জন এলাকায় গত ১০ জুলাই দুপুরে একটি মস্তক বিহীন লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় লোকজন। খবর পেয়ে ওইদিনই ব্রা‏হ্মণপাড়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মস্তক বিহীন লাশটি উদ্ধার করেছে। ঘটনাস্থল থেকে একটি মুঠোফোন জব্দ করেছিলেন পুলিশ। মামলাটি তদন্ত করছেন পিবিআই পুলিশ কুমিল্লা। ওই মুঠোফোনের মাধ্যমে পিবিআই পুলিশ গতকাল সোমবার সকালে জামাল হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছেন। জামাল হোসেনসহ কয়েকজন মিলে তাকে খুন করে লাশ ও মস্তক আলাদা রেখে দিয়েছিলেন। কিন্তু তিনি তাকে চিনতেন না। সাথে থাকা অন্যরা তাকে চিনতেন এবং তাদের সাথেই দ্বন্ধ ছিল ওই লোকটির। লোকটিকে খুন করে মস্তকটি পুকুরে ফেলে দেওয়া হয়েছিল। গতকাল সোমবার বিকালে পুকুর থেকে জাল ফেলে মস্তকটি উদ্ধার করা হয়।

কুমিল্লার পিবিআই পরিদর্শক মো. তৌহিদুল ইসলাম বলেন, গ্রেপ্তার হওয়া জামাল হোসেন খুন করার কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে। তার তথ্যমতে ব্রাহ্মণপাড়া থানা পুলিশের সহযোগিতায় পুকুর থেকে মস্তকটি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে খুনের সাথে আরো বেশ কয়েকজন জড়িত রয়েছে। তাদের সাথে ছিল জামাল হোসেন। তাদেরকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। তাদেরকে গ্রেপ্তার করলেই নিহত ব্যক্তির পরিচয় পাওয়া যাবে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
২,৯৪৯
৩৭
২,৮৬২
১৩,৪৮৮
সর্বমোট
১৭৮,৪৪৩
২,২৭৫
৮৬,৪০৬
৯০৪,৫৮৪
%d bloggers like this: