রবিবার, ৩১ মে ২০২০, ১২:৪০ পূর্বাহ্ন

(আক্কাস আল মাহমুদ হৃদয়, কুমিল্লা)

কুমিল্লা ব্রাহ্মণপাড়া উপজে’লার মীরপুর গ্রামে ধান কা’টাকে কেন্দ্র করে ২৫ এপ্রিল সন্ধ্যায় দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘ’র্ষে সুমন মিয়া নামের এক যুবক আ’হত হয়। পরে সে ২৭ এপ্রিল সোমবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় মা’রা’ গেছে বলে নিহতের পরিবার বিষয়টি নিশ্চিত করে।

এব্যাপারে এলাকাবাসী ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ব্রাহ্মণপাড়া উপজে’লা মাধবপুর ইউনিয়নের মীরপুর গ্রামের বাসিন্দা সুধন মিয়ার ছেলে সুমন মিয়া (২৭) ও একই গ্রামের শাহিন মিয়া উভয়ে একসাথে চুক্তিতে এলাকার বিভিন্ন কৃষকের জমির ধান কা’টার কাজ করতো। ঘটনার দিন, সহযোগী শাহীন মিয়া কে না জানিয়ে সুমন মিয়া অন্য কয়েকজন লোক নিয়ে এলাকার এক কৃষকের ধান কা’টার কাজ করে।

পরবর্তীতে শাহিন বিষয়টি জানতে পেরে সুমন মিয়াকে মোবাইল ফোনে খবর দিলে সে শাহিনের সাথে দেখা করতে একই গ্রামের খোরশেদের বাড়ীতে আসে। এক পর্যায়ে সুমন ও শাহিনের মধ্যে কথা কাটাকা’টি হয়ে শাহিন সহ শাহিনের লোকজন সুমনের উপর হামলা চালিয়ে গুরুতর আ’হত করে।

এসময় এলাকাবাসীলা ডাক চিৎকার শুনে এগিয়ে এলে শাহিন ও অন্যান্য হা’মলাকারিরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে সুমনের লোকজন ঘটনাস্থল থেকে আহত সুমনকে উদ্ধার করে প্রথমে দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক সুমনের অবস্থার অবনতি দেখে তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালে প্রেরন করে। পরে সুমন ২৭ এপ্রিল সোমবার বেলা ১১ টায় কুমেক হাসপালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মা’রা যায়।

এব্যাপারে থানা অফিসার ইনচার্জ আজম উদ্দিন মাহমুদ জানান, সুমন হ’ত্যার বিষয়টি থানা পুলিশ অবগত আছে। এব্যাপারে থানায় মা’মলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে এবং অভিযোক্তদের গ্রে’ফতারে প্রক্রিয়া চলছে।

আরও পড়ুন