শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:১৩ পূর্বাহ্ন

স্টাফ রিপোর্টারঃ বাবার বড় সন্তান ইয়াকুব আলী রনি। পেশায় মাইক্রোবাস চালক। বিয়ে করেছেন। দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে। ইশরাত জাহান ফারিয়া (৭) ও মাইমুনা আক্তার (৪)। কম আয়ে ভালোই চলছিলো জনির সংসার। ২০১৭ সাল। হঠাৎ করে শরীর অসুস্থ হতে থাকে ইয়াকুব আলী জনির। চিকিৎসক জানান, জনির দুটো কিডনিতে সমস্যা আছে। শুরু হয় চিকিৎসা।

অসুস্থ ইয়াকুব আলী জনির বাবা আবদুল জলিল। তিনি পেশায় ফটোগ্রাফার ছিলেন। বয়স হয়েছে। এখন বাড়ীতে থাকেন। আবদুল জলিল জানান, তার তিন ছেলে মেয়ে। বড় ছেলে জনি, মেঝো মেয়ে আর ছোট আরেকটা ছেলে। তবে জনির আয় উর্পাজনেই সংসার চলতো। অসুস্থ হওয়ায় জমি বিক্রি করে চিকিৎসা করিয়েছেন। এখন আর কোন সম্বল নেই। জনির দু’কন্যা সন্তানের কথা বলে ফুঁফিয়ে কাঁদেন। আবদুল জলিল বলেন, এখন জনির অবস্থা খুব খারাপ। দুটো কিডনিই বিকল । তবুও জনি তার মেয়েদের জন্য কিছু দিন বাঁচতে চায়। এ সমাজের বিত্তবানরা যদি আমার ছেলে ইয়াকুব আলী জনির চিকিৎসায় একটু এগিয়ে আসতো জনির মনের আশাটা পূরণ হতো।
অসুস্থ বাবার পাশেই সব সময় থাকে ফারিয়া(৭) ও মাইমুনা। অসুস্থ বাবার সেবায় দিন কাটে।
জনির জন্য সহযোগিতা করতে চাইলে
সোনালী ব্যাংক ভরাসার বাজার শাখা,বুড়িচং কুমিল্লা। ১৩৩২১০০০০২৩২২
০১৭১৪৭৬৮৮০৬ বিকাশ , ০১৮৩১৫১১০০০ বিকাশ

আরও পড়ুন

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
২,৯৪৯
৩৭
২,৮৬২
১৩,৪৮৮
সর্বমোট
১৭৮,৪৪৩
২,২৭৫
৮৬,৪০৬
৯০৪,৫৮৪
%d bloggers like this: