বুধবার, ১২ অগাস্ট ২০২০, ০৮:৫৭ পূর্বাহ্ন

অনলাইন ডেস্ক:
উপলক্ষটা অনেক বড়। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে ১০০০তম ম্যাচ বলে কথা। ২০০৫ সালে শুরু হওয়া আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সবচেয়ে ক্ষুদ্রতম সংস্করণের হাজারতম ম্যাচটি খেলার সুযোগ পেয়েছে বাংলাদেশ।

আর এ সুযোগটিকে স্মরণীয়ই করে রাখলেন মুশফিকুর রহীম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদরা। দলের দুই প্রাণভোমরা সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবালকে ছাড়াই টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে প্রথমবারের মতো ভারতকে হারিয়েছে বাংলাদেশ।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ঐতিহাসিক ম্যাচটিতে ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানেই জিতেছে টাইগাররা। স্বাগতিকদের করা ১৪৮ রানের জবাবে বারবার ম্যাচের ভাগ্য দুলেছে পেন্ডুলামের মতো। তবে শেষ হাসি হেসেছেন দুই ‘ভায়রা ভাই’ মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহই।

দুর্দান্ত ফিনিশিংয়ের ম্যাচে বাংলাদেশ জিতেছে একদম শেষ ওভারে গিয়ে। অভিষিক্ত নাইম শেখ ২৬ ও আরেক বাঁহাতি সৌম্য সরকারের ৩৯ রানের ওপর দাঁড় করানো ভিতে, দালানের শেষ ইটটা বসান মুশফিকুর রহীম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

দুই ভায়রার অবিচ্ছিন্ন ৩৫ রানের জুটিতে ম্যাচের ৩ বল বাকি থাকতেই জয় নিশ্চিত হয় বাংলাদেশের। অভিষিক্ত শিভাম দুবের করা শেষ ওভারের তৃতীয় বলে অসাধারণ এক ছক্কা হাঁকিয়ে দলকে জেতান অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ।

টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে নিজের পঞ্চম ফিফটিতে মুশফিক অপরাজিত থাকেন ৬০ রান করে। মাহমুদউল্লাহর ব্যাট থেকে আসে ১৫ রান।

বাংলাদেশ একাদশ: সৌম্য সরকার, লিটন দাস, নাঈম শেখ, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, আফিফ হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন, আমিনুল ইসলাম, শফিউল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান, আল আমিন হোসেন।

ভারতীয় একাদশ: রোহিত শর্মা (অধিনায়ক), শিখর ধাওয়ান, লোকেশ রাহুল, শ্রেয়স আইয়ার, ঋষভ পান্থ, শিবম দুবে, ক্রুণাল পান্ডিয়া, ওয়াশিংটন সুন্দর, দীপক চাহার, যুজভেন্দ্র চাহাল ও খলিল আহমেদ।

কুমিল্লার মহাসড়কে মৃ ত্যুর মিছিল; মুক্তিযোদ্ধা ও মেডিকেল ছাত্রীসহ নি হত ৩

অনলাইন ডেস্ক:
কুমিল্লায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধা ও মেডিকেলের ছাত্রীসহ ৩ জন নি হত হয়েছে। রোববার (৩ নভেম্বর) ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার চান্দিনা ও দাউদকান্দি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নি হতরা হলো- জেলার হোমনা উপজেলার মনিপুর গ্রামের ছিদ্দিকুর রহমানের পুত্র গ্যাস লাইন নির্মাণ শ্রমিক আব্দুস ছাত্তার (৩০), দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর এলাকার স্বপ্ন পেন্নাই গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম ভূইয়া (৬৭) ও সাভার এনাম মেডিকেল কলেজের শেষ বর্ষের ছাত্রী রেজিয়া সুলতানা রশনী (২২)।

জানা যায়, রবিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চান্দিনা-বাগুর বাস স্ট্যান্ড এলাকায় পথচারী আব্দুস ছাত্তার মহাসড়ক পারাপারের সময় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা একটি কালো রংয়ের মাইক্রোবাস চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃ ত্যু ঘটে। খরব পেয়ে চান্দিনা থানা পুলিশ, হাইওয়ে পুলিশের ইলিয়টগঞ্জ ফাঁড়ি ও ময়নামতি ক্রসিং থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে আসেন।

ইলিয়টগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশের উপ-পরিদর্শক মো. সরওয়ার বলেন, মহাসড়কে হাইওয়ে পুলিশের সীমানা অনুযায়ী ঘটনাস্থলটি ময়নামতি হাইওয়ে ক্রসিং থানার অধীনে হওয়ায় আমরা তাদের কাছে ম রদেহ হস্তান্তর করি। তবে দুর্ঘটনার সাথে সাথে মাইক্রোবাসটি দ্রুত স্থান ত্যাগ করায় গাড়িটি আটক করা সম্ভব হয়নি।

এদিকে শনিবার (২ নভেম্বর) রাতে শান্তি পরিবহনের একটি বাস খাগড়াছড়ি থেকে ঢাকা যাচ্ছিল। রাত ১টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দাউদকান্দি বারপাড়া নামক স্থানে পৌঁছালে চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে বাসটি রাস্তার পাশের খাদে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই রেজিয়া সুলতানা রশনী নি হত হন। তিনি খাগড়াছড়ি বেড়ানো শেষে সাভার ফিরছিলেন। এ সময় আহত চারজনকে উদ্ধার করে দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

অপরদিকে রবিবার সকাল সাড়ে ৮টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দাউদকান্দির গৌরীপুর দিঘিরপাড় রাবেয়া সিএনজি পাম্পের সামনে রাস্তা পারাপারের সময় পিকআপ ভ্যান চাপা দিলে মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম ভূইয়া (৬৭) নি হত হয়েছেন। দাউদকান্দি হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
২,৯৪৯
৩৭
২,৮৬২
১৩,৪৮৮
সর্বমোট
১৭৮,৪৪৩
২,২৭৫
৮৬,৪০৬
৯০৪,৫৮৪
%d bloggers like this: