বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:৫২ অপরাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক:

কুমিল্লার করোনা পরিস্থিতি অবনতি হচ্ছে। শনাক্তের হার কমলেও মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে। কুমিল্লায় উন্নত চিকিৎসা ব্যবস্থা থাকলেও রোগীদের চাপ সামাল দিতে হিমশিত খাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু তালিকায় যোগ হয়েছে আরও  ১৪ জন। শুক্রবার  ( ৬ আগস্ট) সাড়ে ৫ টায় কুমিল্লা জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

২৪ ঘণ্টায় কুমিল্লায়  ৫৬৩ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। এদের মধ্যে কুমিল্লা সিটি করপোরেশন এলাকার ১৬৩ জন, আদর্শ সদরের ১, সদর দক্ষিণের ৭, বুড়িচংয়ের ৫৮, ব্রাহ্মণপাড়ার ২৪ জন রয়েছেন।

এছাড়া চান্দিনার ১০ জন, চৌদ্দগ্রামের ১৯, দেবিদ্বারের ১৫, দাউদকান্দির ৩২, লাকসামের ৬, লালমাইয়ের ২২, নাঙ্গলকোটের ৫৫,  বরুড়ার ১৯ , মনোহরগঞ্জের ১৮, মুরাদনগরের ৮২, মেঘনার ১৮ ও তিতাসে ১৪  রয়েছেন।  

নিহত ১৫ জনের মধ্যে এর মধ্যে চান্দিনা ৩ জন, বরুড়া ৩ জনসহ বাকিরা অন্যান্য উপজেলার।
যার মধ্যে ৪ জন পুরুষ, ১০ জন নারী রয়েছে। নিহতদের বয়স ৩৮ থেকে ৭৫  বছরের মধ্যে ।

কুমিল্লায় সর্বমোট ৩৩  হাজার ৩৫০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।  যার ফলে জেলাজুড়ে মারা গেছেন ৭৮৬ জন।

কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান বলেন, করোনা পরিস্থিতি আগের তুলনায় কিছুটা উন্নতি হচ্ছে। বিধি নিষেধ বাস্তবায়নে মোবাইল কোর্টের অভিযান চলমান রয়েছে। সে সাথে খাদ্য সামগ্রী বিতরণও চলছে।

 সিভিল সার্জন ডা. মীর মোবারক হোসাইন বলেন, কুমিল্লায় সক্রমণের হার ৪০,৪৫ ছিল। যা  বর্তমানে ৩০-৩২ শতাংশে নেমে এসেছে। জেলা জুড়ে টিকা কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। টেস্ট বেশি হওয়ায় আক্রান্ত সংখ্যা বেশি হচ্ছে। গণটিকা কার্যক্রম বাস্তবায়নে সকল প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: