শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ১১:২৬ অপরাহ্ন

কুমিল্লায় ৬১টি পরীক্ষায় আজ ২৪টি রিপোর্টসহ এ পর্যন্ত ৫৪টি রিপোর্ট এসেছে। যার মধৌ সবগুলো নেগেটিভ। বাগিচাগাঁও লকডাউনের বাড়িতে যে ব্যক্তির করোনা উপসর্গ সন্দেহজনক ছিল সেটাও নেগেটিভ। দাউদকান্দির মারুকা ইউনিয়নের চক্রতোলা গ্রামের মৃত কৃষকের করোনা সন্দেহ ছিল সেটাও নেগেটিভ।বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুমিল্লা সিভিল সার্জন ডা. মোঃ নিয়াতুজ্জামান।

নিরাপত্তার স্বার্থে ৬ এপ্রিল দুপুর ১টায় লকডাউন হয়েছিল । সন্দেহভাজন ব্যক্তির নমুনার ফলাফল নেগেটিভ হওয়ায় বাসার সবাইকে লক ডাউন মুক্ত করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানভীর সালেহীন ইমন।

এদিকে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিরে আছে, নিজেদের সুরক্ষায় আপনারা ঘরে থেকে আমাদের সহযোগিতা করুন” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে কুমিল্লায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতা মূলক প্রচারণা চালিয়েছে কুমিল্লা জেলা পুলিশ। কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলামের দিক নির্দেশনায় এই সচেতনতা মূলক টহল বের করা হয়।

বুধবার বেলা ৩টায় কুমিল্লা পুলিশ লাইন থেকে বের হয়ে কান্দিরপাড়, চকবাজার সংরাইস,বিবিরবাজারসহ বিভিন্ন স্থানে এ প্রচারণা চালানো হয়। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কুমিল্লা কোতোয়ালি থানার কর্মকর্তা (ওসি) মো: আনোয়ার নেতৃত্ব মোটরসাইকেল এবং পুলিশ গাড়ি নিয়ে সাধারণ মানুষের মাঝে করোনা ভাইরাস নিয়ে সচেতনতা বৃদ্ধিতে মাইকিং এর মাধ্যমে সকল পর্যায়ের মানুষকে ঘরে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়। এছাড়াও সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী পরবর্তী সিদ্ধান্ত না আশা পর্যন্ত সাধারণ মানুষ যেন নিজ ঘরে পরিস্কার পরিচ্ছান্ন থাকে সে বিষয়ে মাইকিং এর মাধ্যমে প্রচারণা চালানো হয়।

এসময় কুমিল্লার সাধারণ মানুষকে ঘরে সেবা দিতে পুলিশ সব সময় প্রস্তুত এবং এ মোকাবেলায় নিজ ঘরে থেকে পুলিশকে সহযোগিতা করার আহবান জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানভীর সালেহীন ইমন।

আরও পড়ুন