মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০১:৫৪ পূর্বাহ্ন

days 27 hours 22 minutes 06 seconds 22


(আবদুল্লাহ আল মারুফ, বরুড়া)

কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার চা বিক্রেতা আবদুল খালেক প্রতিষ্ঠিত নলুয়া চাঁদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট(জেএসসি) পরীক্ষার পাশের হার ৯৭.৯৬ শতাংশ। 
 ২০১৯ সালের প্রকাশিত জেএসসি পরীক্ষার ফলাফল আশে পাশের সব স্কুল কে ছাড়িয়ে গেছে।

বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী  ৯৮ জন ছাত্র-ছাত্রী অংশ নেয়। তাদের মধ্যে ৯৬ জন পাশ করেছে। উত্তীর্ণদের মধ্যে ১জন জিপিএ-৫,  ৫০জন গ্রেডসহ ৯৬ জন পাশ করেছে। 
  বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জানান, প্রতিবারের মতো এ স্কুটি ভালো ফল করেছে। শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিবাবক,  কমিটিবৃন্দসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি কৃতজ্ঞতা।  অাগামী দিনগুলোততে অামরা অারো ভালো ফলাফলের প্রস্তুতি নিচ্ছি। 


স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা আবদুল খালেক জানান, আমি অসুস্থ। তাই আমার মন খারাপ ছিল।  কিন্তু ছাত্রছাত্রীদের এই ফলাফল দেখেই খুবই ভালো লাগছে।


উল্লেখ্য, চা বিক্রির টাকা দিয়ে  ৫২ শতক জমির উপর ১৯৯৭ সালে বরুড়া উপজেলার নলুয়া চাঁদপুর উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন অাবদুল খালেক। দুই দশক অপেক্ষার পর ২০১৯ সালে এমপিওভুক্তির তালিকায় স্থান পেয়েছে স্কুলটি।

কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডে এ বছর জেএসসি পরীক্ষায় পাশের হার শতকরা ৮৮.৮০।জিপিএ ফাইভ পেয়েছে ৬১৩১জন।এবছর মোট ২লাখ ৭০হাজার ৯৭৪জন পরীক্ষার্থী জেএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে। পাশ করে ২লাখ ৪০হাজার ৬২২জন।বোর্ডের অধীনে ৬টি জেলায় ১৯২৮টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষার্থীরা জেএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে।

২৩৯টি শতভাগ পাস। যা গতবছর ছিল ১৫৮টি।গতবছর পাশের হার ছিল ৮৪.৮০%। জিপিএ ফাইভ ছিল ৩৭৪২জন।এবছর গতবছরের চেয়ে পাশের হার ও জিপিএ ফাইভের সংখ্যা এবং শতভাগ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বেড়েছে। তুলনামূলক পাশের এগিয়ে ছেলেরা, জিপিএ ফাইভে এগিয়ে মেয়েরা।

আরও পড়ুন