রবিবার, ০৯ অগাস্ট ২০২০, ১০:৪৯ পূর্বাহ্ন

অনলাইন ডেস্ক:

বাজার থেকে গুড়ো দুধের পেকেট কিনে চা বানিয়ে খেয়ে কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার বড়ধুশিয়া গ্রামের ৩ স্কুল ছাত্রীসহ একই পরিবারের চারজন অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এর মধ্যে দুইজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেবার পর বাকী দুইজন হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা সেবা নিচ্ছে। হাসপাতাল ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার রাতে বড়ধুশিয়া বাজারের আল আমিন ষ্টোর থেকে ওই গ্রামের আবদুল হালিম ‘টুডে’ গুড়ো দুধের ১০ টাকা দামের একটি প্যাকেট কিনে বাড়িতে আনে।

সকালে পরিবারের সবাই ওই দুধের প্যাকেট খোলে চা বানিয়ে পান করার পর পরই সবার বমি শুরু হতে থাকে। তখন তাদের সবাইকে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার তাদের মধ্যে দু’জন ভগবান সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী মোসাঃ জেরিন আক্তার (১৫) এবং বড়ধুশিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেনীর ছাত্র মোঃ সুজন মিয়া (৭) কে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়ীতে পাঠিয়ে দেয়।

অপরদিকে অপর দুইজন বড়ধুশিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী সোনিয়া (১৫) এবং আয়েশা বেগম (৫) কে বেশী অসুস্থ্য মনে হওয়ায় তাদের স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তারা সেখানে চিকিৎসাধীন আছে। অসুস্থ্য চারজনই বড়ধুশিয়া গ্রামের একই পরিবারের আবদুল হালিমের ছেলে ও মেয়ে। খবর পেয়ে ওই দিন দুপুরে উপজেলা সেনেটারী ইন্সপেক্টর পারভিন সুলতানা ওই দোকানে অভিযান চালিয়ে ১০ টাকা ও ২০টাকা গুড়ো দুধ ‘টুডে’ নামের ২০টি পেকেট জব্দ করে নিয়ে আসেন।

তিনি এ প্রতিনিধিকে বলেন, পেকেটগুলোর গুড়ো দুধ পরীক্ষা-নিরিক্ষার জন্য রবিবার ইন্সটিটিউট অব পাবলিক হেলথ(আইপিএস) এ পাঠানো হবে। প্রতিবেদন পাবার পর আইনী ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
২,৯৪৯
৩৭
২,৮৬২
১৩,৪৮৮
সর্বমোট
১৭৮,৪৪৩
২,২৭৫
৮৬,৪০৬
৯০৪,৫৮৪
%d bloggers like this: