শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ১০:২৫ পূর্বাহ্ন

মোঃ শরীফ উদ্দিনঃ
আজ ঐতিহাসিক ৭ ডিসেম্বর কুমিল্লার বরুড়া হানাদার মুক্ত দিবস।
১৯৭১ সালে এ দিনে পাক হানাদার বাহিনীকে পরাজিত করে বরুড়ায় লাল সবুজ পতাকা উত্তোলন করা হয়। বরুড়া হানাদার মুক্ত দিবস উপলক্ষে প্রতি বছর উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক উপজেলার পয়ালগাছা ইউনিয়নের শহীদ নগরে পাক বাহিনীর সাথে বটতলী সম্মুখ যুদ্ধে দেশের জন্য আত্মত্যাগ কারী শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধাের স্মরণে তাদের সমাধি ও প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

এবছরও তার ব্যতিক্রম হচ্ছে না। বরুড়া হানাদার মুক্ত দিবস উপলক্ষে বরুড়া উপজেলা প্রশাসন তাদের স্মরণে ৭ ডিসেম্বর সকালে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে নিয়ে উপজেলা বঙ্গবন্ধু ম্যুরাল ও বটতলী শহীদ নগরে পুষ্পস্তবক অর্পণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।


প্রসঙ্গত, ৭ ডিসেম্বর কুমিল্লার বরুড়া মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের এদিনে পাক হানাদার বাহিনীর কবল থেকে বরুড়া মুক্ত হয়। দীর্ঘ ৯ মাসের যুদ্ধ আর নির্যাতনের পরিসমাপ্তি ঘটিয়ে মুক্তিযোদ্ধা ও মিত্র বাহিনীসহ সর্বস্তরের জনগণের উল্লাস ধ্বনিতে প্রকম্পিত হয়ে উঠে, মুক্ত হয় বরুড়া। ১৯৭১ সালের ৬ ডিসেম্বর রাতে মুক্তি বাহিনী ও মিত্র বাহিনীর সাড়াশী আক্রমণে পাক সেনারা তাদের ক্যাম্প গুটিয়ে বরুড়া ছেড়ে যেতে বাধ্য হয়। রাতের মধ্যে অবস্থানরত পাক সেনাদের সঙ্গে মুক্তি বাহিনী ও মিত্র বাহিনীর সঙ্গে সম্মুখ যুদ্ধে পাকসেনাদের প্রধান ঘাঁটি পতনের মধ্য দিয়ে পরদিন ৭ ডিসেম্বর বরুড়া পাক সেনা মুক্ত হয়।

এদিন ভোরে মুক্তিসেনারা বরুড়ার বিভিন্ন এলাকা দিয়ে আনন্দ উল্লাস করে কুমিল্লা শহরে প্রবেশ করে। স্থানীয় জনসাধারণ মুক্তিযোদ্ধাদের ফুলের পাপড়ি ছিটিয়ে বরণ করে নেয়। পরে এদিন বিকেলে বরুড়ায় বীর মুক্তিযোদ্ধা, মিত্রবাহিনী ও জনতার উপস্থিতিতে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করেন জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানেরা।

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: